সাভার উপজেলায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির জরুরী সভা

সাভার সংবাদ দাতাঃ-

সাভারে করোনা প্রতিরোধে যুগান্তকারী পদক্ষেপ নিয়েছে সাভার উপজেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটি। মঙ্গলবার (২৫ মে) বিকালে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির এক বিশেষ সভায় এসংক্রান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়। সাভার উপজেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাজহারুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা এবং সাভার উপজেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব ডা. মোহাম্মদ সায়েমুল হুদা।

সভায় সাভার উপজেলার বারটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানবৃন্দ,এভারগ্রীন মানবাধিকার সংস্থা সাভার নাগরিক কমিটির পরিচালক, সনাক সাভার এর পরিচালক, ইসলামিক ফাউণ্ডেশন এর সাভার প্রধান সহ সাভারের সকল বাজার কমিটি, ফার্মেসি কমিটি, সাভার গার্মেন্টস মালিক সমিতি, করোনা লাশ দাফন কমিটি, সকল গরুর হাট সমিতি, মসজিদ ও মাদরাসা কমিটি, পরিবহন মালিক সমিতি, মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতি, প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি, সাভার রেড ক্রিসেন্ট, ফায়ার সার্ভিস, ম্যান ফর ম্যান ফোর্স, সাভার ও আশুলিয়া প্রেসক্লাব- এসব প্রতিষ্ঠানের সভাপতি ও সেক্রেটারিদের এই সভায় অংশ নেবার জন্য সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাজহারুল ইসলাম গত ২২ মে, ২০২১ তারিখে নোটিশ প্রেরণ করেন। এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে তিনটায় উল্লেখিত প্রতিষ্ঠানের অধিকাংশ মানুষের উপস্থিতিতে সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়, সাভার উপজেলায় উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে চলমান সরকারি স্বাস্থ্য বিধি আরও গতিশীল করতে সমগ্র সাভারকে ‘ডি-সেন্ট্রালাইজড’ করণ দ্বারা নোটিশে উল্লেখিত সকল সংগঠন ও স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাগুলোকেও সম্পৃক্ত করা হবে।

তারা নিজ নিজ এলাকায় নিজ দায়িত্বশীলতায় সবাইকে সরকারি স্বাস্থ্য বিধি মানাতে সচেতন করবেন এবং সবাই মেনে চলবে সে ব্যাপারেও ভূমিকা পালন করবেন। যেমন- উপজেলা প্রশাসনের সহায়তায় মাস্কবিহীনগণকে মাস্ক পরাবেন, সচেতন করবেন। সাধারণ মানুষ এসব স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলবে, তাদের নিজ নিজ এলাকায় তারা এটা নিশ্চিত করবেন। মূলত করোনা নিয়ন্ত্রণে আমন্ত্রণকৃত ৩১টি সংস্থা নিজের কর্মপরিধি বা এলাকা নিয়ন্ত্রণ করবেন। এসময় সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সাভার উপজেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি মোঃ মাজহারুল ইসলাম জানান, সাভারে এই করোনা যুদ্ধে যারা শুরু থেকে অদ্যাবধি স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করছেন, তারা তাদের জন্য সনদ এর দাবী করেছেন। আপনাদের কাজের প্রতি সম্পূর্ণ শ্রদ্ধা রেখেই বলছি, আসলে আপনারা যে কাজ করেছেন সেই তূলনায় আপনাদের এই দাবী একটা ছোট্ট চাওয়া, উপজেলা প্রশাসন অবশ্যই আনন্দচিত্তে তা মেনে নেবে। এটা আপনারা পাবেন, আমাদের পরবর্তী সভায় আপনাদের স্বীকৃতি প্রদান বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হবে।

এসময় তিনি উপস্থিত সংস্থাগুলো থেকে আগত প্রধানদের উদ্দেশ্যে আরও জানান, আপনাদের এলাকায় যারা নিতান্তই গরীব ও অসহায়, যারা ত্রাণ পেতে পারে তাদের নামের তালিকা আমাদের দিবেন, আমরা যাচাই করে তাদেরকে ত্রাণ পৌঁছে দেবার ব্যবস্থা করবো। সাভার উপজেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব ও সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ সায়েমুল হুদা বলেন, কোনো যুদ্ধই এককভাবে বিজয় সম্ভব নয়। সকলের সমন্বিত এবং সকলকে সাথে নিয়েই বিজয়ী হওয়া সম্ভব। আজকের এই যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত বাস্তবায়িত হলে ইনশাআল্লাহ সাভারে করোনার বিরুদ্ধে চলমান যুদ্ধে আমরা বিজয়ী হবো। সভা শেষে ডা. সায়েমুল হুদাকে জিজ্ঞেস করা হয় এই সভায় গৃহীত সিদ্ধান্তগুলোর অনুপ্রেরণা কিভাবে পেলেন সে সম্পর্কে। বার্তা বাজারকে এব্যাপারে তিনি জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক ডিজি (এডমিন) ও বর্তমানে ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার জনাব মোঃ খলিলুর রহমান স্যার ডিজি (এডমিন) থাকা অবস্থায় মেইলে আমাকে এসব ধারণাগুলো দিয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন, এভাবে যেন আমি কাজ করি। মূলত তাঁরই অনুপ্রেরণায় এসব সিদ্ধান্ত সাভার উপজেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সামনে উপস্থাপন করলে কমিটি তা অনুমোদন করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.