সবাইকে স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা

যে বাবা নিজের মেয়েকে ধর্ষণ করে প্রতিদিন, তাকেও আজ স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা।

২.যে মা নিজের ধর্ষক ছেলেকে লুকিয়ে রাখে ঘরে, তাকেও স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা।

৩.শুধুমাত্র গায়ের রঙ কালো হওয়ার কারণে যে ঠাকুমা তার নাতনিকে কোনোদিন কোলে নেয়নি, সেই ঠাকুমাকেও আজ স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা।

৪.ভিড় বাসে ট্রেনে কিংবা অটোয় যারা কনুই ঠেকায় মেয়েদের বুকে, পিঠে, পাছায় হাত দেয়, তাদের প্রত্যেককে স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা।

৫.মুখে এসিড মেরে সগৌরবে ঘুরে বেড়ানো অমানুষগুলোকেও স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা।

৬.জাতপাত ও ধর্ম ভিন্ন হওয়া সত্ত্বেও প্রেম করে বিয়ে করার জন্য যে দুটো পরিবার নিজের বাড়ির হিন্দু ছেলেটার ও মুসলিম মেয়েটার কোনোদিন মুখ দেখেনি, তাদের সন্তানকে কোনোদিন আশীর্বাদ করেনি, সেই দুটো পরিবারকেও আজ শুভ স্বাধীনতা দিবস…..

৭.গাছ কেটে হাইওয়ে রাস্তা বানানো লোকগুলোকেও স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা।

৮.সুইসাইডের হুমকি দিয়ে ব্ল্যাকমেইল করে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখা ছেলেমেয়েদেরও স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা।

৯.রাস্তাঘাটে খ্যাক খ্যাক করে থুতু কফ পানের পিক খাবারের প্যাকেট ফেলা ভদ্র মানুষদেরও স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা।

১০.বিয়ের পর স্ত্রীর ইচ্ছের বিরুদ্ধে শারীরিক সম্পর্ক তৈরি করা স্বামীটিকেও স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা।

১১.সবদিক থেকে পারফেক্ট হয়েও শুধুমাত্র কম রোজগার বলে যে ছেলেটিকে, মেয়েটির বাড়ির লোক বিয়ে দিতে অস্বীকার করে, সেই পরিবারকেও স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা।

১২.সমলিঙ্গের মানুষের সাথে প্রেম করায় যে সমাজ দুটো মেয়েকে ও দুটো ছেলেকে পুড়িয়ে মেরেছিল, সেই সমাজকেও শুভ স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা রইলো।

স্বাধীনতা মানে মননে স্বাধীন হওয়া, শুদ্ধ হওয়া, পবিত্র হওয়া, নিজের ভেতর যে নোংরা চিন্তা ভাবনাগুলো আছে, সেগুলোর বিশুদ্ধিকরণ।

স্বাধীনতা মানে অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলা, আপোষ করা নয়….

কৃপা বসু

Leave a Reply

Your email address will not be published.