বন্যার্তদের নিরাপদ পানি নিশ্চিতে কাজ করছে যুব রেড ক্রিসেন্ট সাভার উপজেলা দল, ঢাকা জেলা ইউনিট

শাহিন ইসলাম স্বাধীন,সাভার থেকেঃ- বন্যাকবলিত সবকয়টি জেলায় ক্ষতিগ্রস্ত জনগণের স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও নিরাপদ পানি নিশ্চিতকরণে কাজ করছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি।

সংস্থাটি জানায়, সোসাইটির জাতীয় সদর দপ্তরের সহযোগিতায় জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের সরাসরি তত্বাবধানে এই কার্যক্রম বাস্তবায়িত হবে। এছাড়া ক্ষতিগ্রস্ত জেলায় বন্যার পানিতে ডুবে যাওয়া টিউবয়েল মেরামত ও জীবাণুমুক্ত করণ এবং বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা প্রদানে রেড ক্রিসেন্টের মেডিকেল টিম কাজ করছে।

এদিকে যুব রেড ক্রিসেন্ট ঢাকা জেলা ইউনিটের তত্ত্বাবধানে যুব রেড ক্রিসেন্ট সাভার উপজেলা দলের পক্ষ থেকে ২৮-০৮-২০২০ইং তারিখ সাভার পৌরসভার বিভিন্ন স্থানে বন্যা কবলিত এলাকায় পানি বিশুদ্ধ করন পাউডার বিতরন করা হয়। বলে জানিয়েছেন, যুব রেড ক্রিসেন্ট সাভার উপজেলা দলের, আহবায়ক- মোঃ শাহীন আলম স্বাধীন।

যুব ও সেচ্ছাসেবক বিভাগের পরিচালক, ইমাম জাফর শিকদারের নেতৃত্বে কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির প্রতিটি সদস্য তিনি জানান, একমাত্র যুব শক্তির মাধ্যেমেই দেশকে আলোকিত করে দেশের সকল মহামারীর মোকাবেলা করা সম্ভব।

সোসাইটির ডিজাস্টার রেসপন্স বিভাগের পরিচালক মো. মিজানুর রহমান জানান, বন্যায় অধিক ক্ষতিগ্রস্ত ৬টি জেলায় (কুড়িগ্রাম,গাইবান্ধা,বগুড়া,সিরাজগঞ্জ,টাঙ্গাইল ও জামালপুর) নিরাপদ খাবার পানি নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে প্রথম পর্যায়ে বন্যার পানিতে ডুবে যাওয়া ৬০০টি টিউবয়েল মেরামত ও জীবাণুমুক্তকরণের কাজ শুরু করেছে সোসাইটি।

তিনি আরও জানান, ক্ষতিগ্রস্ত জনগণের পয়নিষ্কাশন ব্যবস্থার সুবিধার্থে নতুন করে ১৮০টি ল্যাট্রিন স্থাপনের কাজ অব্যাহত রয়েছে। পরবর্তীতে এসব কার্যক্রম আরোও বৃদ্ধি করা হবে।

সোসাইটির স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, বন্যা কবলিত এলাকার জনগণের বন্যা পরবর্তী স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতকরণে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির মেডিকেল টিম দুর্গত এলাকায় চিকিৎসা কার্যক্রম শুরু করেছে। ৫টি (পাঁচটি) মেডিকেল টিম গত ১৪ আগস্ট থেকে বন্যায় অধিক ক্ষতিগ্রস্ত লালমনিরহাট, সিরাজগঞ্জ, গাইবান্ধা, সুনামগঞ্জ ও টাঙ্গাইল জেলায় রোগীর চিকিৎসা অব্যাহত রেখেছে। প্রতিটি টিমে একজন চিকিৎসক,প্যারামেডিক ও ২ জন করে রেড ক্রিসেন্টের প্রশিক্ষিত স্বেচ্ছাসেবক রয়েছে।

যুব রেড ক্রিসেন্ট ঢাকা জেলা ইউনিট, সেক্রেটারি- ফয়সাল আহমেদ এবং ঢাকা জেলা ইউনিট কার্যকারি সদস্য ও ডেলিগেট আতিকুল হক শামিম সার্বিক নেতৃত্ব ও জেলা ইউনিট সহ উপজেলা দলগুলোর সকল সদস্যকে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির ময় এই সময়ে মহামারী মোকাবেলা করার সাহস ও অনুপ্রেরণা দিয়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত।

যুব রেড ক্রিসেন্ট ঢাকা জেলা ইউনিট, যুব প্রধান – শান্ত হোসেন রাব্বি বলেন, , ‘বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের খাদ্য সহায়তাসহ চিকিৎসা ও পয়নিষ্কাশন ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণে কাজ করছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি। বন্যা ছাড়াও বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় জনগণের জন্যও মানবিক সহায়তা কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.