ফেনীতে ৭ম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ, ওয়ার্ড এর আ.লীগ নেতাকে গ্রেফতার

রফিকুল ইসলাম বিভাগীয় সম্পাদক:

ফেনীর সোনাগাজীতে ৭ম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় তমিজ উদ্দিন নয়ন নামে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।বৃহস্পতিবার (০৮ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১০টার দিকে ভাদাদিয়া গ্রামের, চুনি মাঝির বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সে মতিগঞ্জ ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সভাপতি।পুলিশ জানায়, ওই গ্রামের চুনি মাঝি বাড়ির মৃত সৈয়দ আহম্মদের ছেলে তমিজ উদ্দিন নয়ন বাড়ির সামনে একটি ফার্নিচার দোকানের ব্যবসা করে। গত ১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকালে ওই দোকানের কর্মচারীর স্কুলপড়ুয়া মেয়ে প্রাইভেট পড়তে যায়।দোকানের মালিক নয়ন ছাত্রীকে দোকানে ডেকে নিয়ে আসে।তারপর তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে নয়ন। ঘটনাটি কাউকে জানালে ছাত্রী ও তার বাবাকে হত্যার হুমকি দেয়।

No description available.

বিষয়টি নয়নের স্ত্রী দেখে ফেলে তাই তার মুখ বন্ধ করার জন্য নয়ন তাকে অনেক মারধরও করেন। একপর্যায়ে যখন স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়।এ কারণে অনেকেই জেনে যায় এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ছড়িয়ে পড়ে।পরে ৮ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার রাত আটটার দিকে ওই ছাত্রী তার পিতা-মাতার কাছে সব খুলে বলেন। এ ব্যাপারে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার রাতেই তমিজ উদ্দিন নয়নকে আসামি করে সোনাগাজী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত নয়ন নির্যাতিত ছাত্রীর সম্পর্কে চাচা হন বলে স্থানীয়রা জানান।সোনাগাজী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাজেদুল ইসলাম গ্রেফতারের সত্যতা যাচাই করে বলেন ভিকটিমের শারীরিক ডাক্তারি পরীক্ষাসহ প্রয়োজনীয় আইনি পদক্ষেপ নেয়ার কাজ চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.