দান নয় সহমর্মিতা”র ছোঁয়ায় স্বাবলম্বি হয়ে উঠছে এক একটি পরিবার

দান নয় সহমর্মিতার প্রধান উদ্দোক্তা পারভীর ইসলাম ম্যাম,উদ্দেশ্য ছিলো করোনা কালীন পরিস্থিতি মোকাবেলায় গরীব, অসহায়দের বিভ্রান্তি কর অবস্থা কেটে উঠার উপায়। ১০০ জনের ১০০ টাকা করে মাসিক চাঁদা পরিকল্পনা ছিলো, যা দিয়ে বড় ফান্ড করে একটি একটি পরিবারকে সচ্ছল করে তোলা। সকলের ভালোবাসা ও সহযোগিতায় সহমর্মিতার সদস্য সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলছে।বিভিন্ন শ্রেনীর মানুষ সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে। সচ্ছতার জন্য জুন-২০ এর সকল কার্যাবলীর প্রতিবেদন পেশ করেন ঝুমা রয়।
কার্যক্রম নিম্নে তুলে ধরা হলো।

“দান নয় সহমর্মিতা” গ্রুপের জুন, ২০ মাসের বাস্তবায়িত কর্মসূচির প্রতিবেদনঃ

কর্মসূচী-০১
কাজের ধরণঃ ব্যবসা (দরজী)
জীবননাহার
ডগর মোড়া, সাভার।
সহায়তার পরিমাণঃ ৯০০০/- টাকা। (ব্যাক্তিগত ফান্ড, ডাঃ মমতাজ বেগম।

কর্মসূচি-২
কাজের ধরণঃ ব্যবসা (লাইটের দোকান)
মাহমুদুল
শনির আখড়া, ঢাকা।
সহায়তার পরিমাণ-৩০০০ টাকা। (গ্রুপ ফান্ড)
ব্যাক্তিগত – ১৫০০/- ( শিউলী বিশ্বাস)
সহায়তা জুলাই, ২০
৩০০০/- টাকা ( গ্রুপ ফান্ড)
মোট সহায়তা – ৭৫০০/- টাকা

কর্মসূচি-৩
কাজের ধরণঃ (ব্যবসা) চায়ের দোকান
আবু বক্কর এবং তার মা
৭ নং ওয়ার্ড, ইমান্দিপুর, সাভার।
সহায়তার পরিমাণ-৩৫০০ টাকা। (গ্রুপ ফান্ড)

কর্মসূচি-৪
কাজের ধরণঃ ছাগল পালন
রাকি
মোহনপুর, কালুখালি, রাজবাড়ি।
সহায়তার পরিমাণ-৩৫০০ টাকা। (গ্রুপ ফান্ড)

কর্মসূচী-০৫
কাজের ধরণঃ ব্যবসা (দরজী)
জান্নাতুল ফেরদৌস
রাজাসন, সাভার।
সহায়তা- শেলাই মেশিন। (ব্যাক্তিগত ফান্ড) নাজনীন উর্মিলা।

সহায়তা নং – ৬
নামঃ পারভীন বেগম
সহায়তার কারণ-
ডায়ালাইসিস
ID no. 0012 ( নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক)
টাকার পরিমাণ- ১০০০ টাকা।
( এই গ্রুপ গঠনের পূর্বে আরো তিনবার ১২০০ টাকা করে দেয়া হয়েছে)

সহায়তা নং – ৭
# প্রখ্যাত গিটার শিল্পী রিচার্ড কিশোর।
সহায়তার কারণ- করোনায় আক্রান্ত হয়ে আয় বন্ধ।
ID no. 0013 ( নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক)
টাকার পরিমাণ- ২০০০ টাকা।

সহায়তা নং – ৮
৩. উজ্জ্বল
সহায়তার কারণ- স্পাইনাল কর্ডে বোন টিবি আক্রান্ত হওয়ায় চিকিৎসা সহায়তা।
ডা. মমতাজ বেগম – ৫০০০ টাকা।
সোনিয়া ইসলাম ঋতু- ২০০০ টাকা।
মোট সহায়তার পরিমাণ- ৭০০০ টাকা।

সহায়তা নং – ৯
জসিম মিয়া অসুস্থ হয়ে ড্রাইভার জসিম মিয়া কর্মহীন।

তরুন কুমার সাহা (১০০০/-)
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক (৫০০/-)
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক (৫০০/-)
মোট সহায়তার পরিমাণ- ২০০০ টাকা।

জুন ১৪ থেকে জুলাই আজ পর্যন্ত সহমর্মিতা প্রতিবেদন।
এ মাসেই আমরা আরো দুটো সেলাই মেশিন দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

আপনারা সবাই মিলে সহমর্মিতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। প্রমান করেছেন আমরা একটি পরিবার।
ভবিষ্যতে আরো ভালো কিছু কাজ করবো আশা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.