চাচার বাসায় বেড়াতে এসে ধর্ষণের শিকার এক তরুণী

মোঃ রফিকুল ইসলাম বিভাগীয় প্রধান :

চট্টগ্রাম নগরীতে আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে এসে এক তরুণী (২০) ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ডবলমুরিং এলাকার ওই ঘটনায় সোমবার এক তরুণীসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। চান্দু মিয়া নামে এক ব্যক্তি ওই তরুণীকে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাঁকে আটক করার চেষ্টা চলছে।চট্টগ্রাম নগরীর সুপারি পাড়ার এই ভবনে রোববার রাতে বান্ধবীর সহায়তায় এক তরুণীকে কৌশলে ঢেকে আনে পুলিশের সোর্স চান্দু মিয়া। পরে তাকে ধর্ষণ করা হয় ভবনের তিন তলার একটি রুমে। ধর্ষক চান্দু পুলিশের সোর্স ও ক্ষমতাবান হওয়ায় তার বিরুদ্ধে মুখ খুলতে রাজি নন এলাকাবাসী।এদিকে ঘটনার পরপরই ধর্ষণে সহায়তাকারী নুরী ও তার স্বামীসহ তিনজনকে আটক করে নগরীর ডবলমুরিং থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেছে নির্যাতিত পরিবার। অভিযুক্ত চান্দুর বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগে এর আগেও ৩টি মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।এক সপ্তাহ আগে ফেনী থেকে ওই তরুণী আগ্রাবাদ সিডিএ এলাকায় চাচার বাসায় বেড়াতে আসেন। সেখান থেকে রাতে চাচাতো বোনের বান্ধবীর নুরীর বাসায় বেড়াতে যান। রাতে নুরী কৌশলে ধর্ষক চান্দুর হাতে তুলে দেয় ওই নারীকে।পরে তাকে ধর্ষণ করা হয় ভবনের তিন তলার একটি রুমে। পরে ওই নারীকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.