চলে গেলেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়.

ভারতের সংসদীয় রাজনীতিতে যে কোনও সঙ্কট সামলে দেওয়ার দক্ষতা ছিল যে মানুষটার! সেই মানুষটা নিজের জীবনের চরমতম সঙ্কট আর কাটিয়ে উঠতে পারলেন না, শেষপর্যন্ত থেমে গেল লড়াই, মৃত্যুর কাছে হেরে গেলেন তিনি…..

গত ৯ অগস্ট বাড়ির বাথরুমে পড়ে গিয়ে মাথায় গুরুতর চোট পান প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়, তারপরই দিল্লির সেনা হাসপাতালে তাঁকে ভর্তি করানো হয়।

অপারেশনের আগে করোনা পরীক্ষা করানো হলে রিপোর্ট করোনা পজেটিভ আসে। টুইটারে রিপোর্ট জানিয়ে তাঁর সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের সতর্কও করে দেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়…..

এরপর মাথায় অস্ত্রোপচার হয় তাঁর, তারপর থেকেই কোমায় আচ্ছন্ন ছিলেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। আজ সকালে দিল্লির সেনা হাসপাতালে আরও অবস্থার অবনতি হয় প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির, আর সেই সেনা হাসপাতালেই কিছু সময় আগে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন, তাঁর মৃত্যুতে শোকমগ্ন গোটা দেশ….

প্রণব মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যুতে কার্যত পিতৃহারা বীরভূমের কীর্ণাহার। এই গ্রামের মেঠো পথ, ভাঙা সাঁকো পেরিয়ে সোজা রাষ্ট্রপতি ভবন, এক দীর্ঘ বর্ণময় জীবন ফেলে রেখে গেলেন কীর্ণাহারের আদরের পল্টু……

প্রণব মুখোপাধ্যায়ের জন্ম ১৯৩৫ সালের ১১ ডিসেম্বর, বাবা কামদাকিঙ্কর মুখোপাধ্যায় ছিলেন স্বাধীনতা আন্দোলনের একজন সক্রিয় কর্মী, পরবর্তীকালে পশ্চিমবঙ্গের বিধান পরিষদের সদস্যও ছিলেন, সেই সূত্রেই প্রণব মুখোপাধ্যায়ের রাজনীতিতে হাতেখড়ি হয় ঘর থেকেই….

দীর্ঘকালীন রাজনৈতিক জীবনের ঝড়ঝঞ্ঝা পেরিয়ে ২০১২ সালে ২৫শে জুলাই রাষ্ট্রপতি হন প্রণব মুখোপাধ্যায়, ২০১৭ সালের ২৫ জুলাই মেয়াদ শেষ হয় তাঁর……

২০১৯সালে দেশের সর্বোচ্চ নাগরিক সম্মান ভারতরত্ন দ্বারা ভূষিত হন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়…..

শেষমেশ ৩১আগস্ট ২০২০, থেমে গেল লড়াই! সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টা নাগাদ পুত্র অভিজিত মুখোপাধ্যায় টুইট করে জানালেন, বাবা আর নেই। কয়েক দিনের রুদ্ধশ্বাস লড়াইয়ে হার মানলেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়, মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর……

আজ আরো একটি গভীরতম কালো দিন, আজ আরো একটি নক্ষত্রপতন হলো…..

Leave a Reply

Your email address will not be published.