করোনা আক্রান্ত ডাঃ মাহবুবুল আলম এর পারিবারিক গল্প ……

ডাঃ মাহবুবুল আলম এর ওয়াল থেকে নেওয়াঃ-সৃস্টিকর্তা তাঁর অপার রহমত ও করুনা ঢেলে দিয়ে আমাকে ওদের কাছে ফিরিয়ে দিয়েছে। আমার পরিবারের আবেগ ,উৎকন্ঠা ও ভালোবাসা আমাকে আপ্লুত করেছে।

আমার এই ছবির কন্যা ,মায়িশার অসম সাহস । সে সবার মধ্যে তা ছড়ায়।
আর ছোট কন্যা, মৃত্তিকার অপরিসীম ভালোবাসা বাবার জন্য।

আটপৌরে জীবনের অন্য দিনগুলো বয়ে চলে যেমন তেমন। কিন্তু যখন আমার কোন বিপদ হয়,তখনি ওর মা তার সবটুকু নিয়ে হাজির হয়। দশ হাত প্রসারিত করে। উঁপচে পড়ে তাঁর সব ভালোবাসা ,বাঁধভাঙ্গা বন্যার মতো।

মা আর ছোটবোনকে বলতেই পারিনি,তারা দুর থেকে ছটফট করবে,এই ভয়ে। তবুও মায়ের মন আঁচ করে কিছু একটা হয়েছে। ফোনে বারবার শুধায় ,কেমন আছ বাবা?বলি ,ভালো আছি মা। চিন্তা করোনা।

ছোট ভাই ,ওর বৌ, ভাতিজি সার্বক্ষনিক খোঁজ রাখে। শাশুড়ী আম্মা দাঁড়িয়ে থাকে জায়নামাজে।আত্মীয়রা খবর নেয়।

বন্ধু,কলিগ,ক্যাম্পাস ও সন্ধানীর প্রিয় মুখগুলো সাহস দেয়,ভালোবাসার আঁকুতি জানায়।
এই মায়াময় জগতে করুনাময় আরো কিছুকাল আমাকে থাকার সুযোগ দিয়েছেন, তা আপনাদের‌ই দোয়া ও প্রার্থনায়।
সকলের প্রতি আমার কৃতজ্ঞতার শেষ নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published.